Loading...

জীবন যেখানে যেমন (পেপারব্যাক)

স্টক:

২৭৫.০০ ১৯২.৫০

"জীবন যেখানে যেমন"বইটির সম্পর্কে কিছু কথা: স্বনামধন্য লেখক আরিফ আজাদ একজন আলাের ফেরিওয়ালা। বিশ্বাসের দর্শন দিয়ে লেখালেখির জগতে পা রাখা এই লেখক এবার হাজির হয়েছেন জীবনের কিছু গল্প নিয়ে। জীবনের পরতে পরতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা গল্পগুলােকে লেখক তুলে এনেছেন তার শৈল্পিক রং-তুলিতে। আলাে থেকে স্ফুরিত হওয়া সেই অসাধারণ গল্পগুলাে যেমন জীবনের কথা বলে, তেমনই জীবনে রেখে যায় বিশ্বাসী মূল্যবােধের গভীর এক ছাপ। জীবন যেখানে যেমন নিরেট গল্পের একটি বই। তবে কেবল গল্পের বই বলে একে মূল্যায়নের সুযােগ নেই। গল্পের ফাঁকে ফাঁকে লেখক তার পাঠকদের জন্য রেখে গিয়েছেন চিন্তার কিছু খােরাক। পাঠকের ভাবুক মন যদি সেগুলােয় নিবিষ্ট হয়, আমরা আশা করতে পারি, গল্পের পাশাপাশি তারা জীবনের কিছু উপকারী পাঠ কুড়িয়ে নিতে সক্ষম হবে। লেখক আরিফ আজাদ তার লেখনীশক্তির মুন্সিয়ানায়। গল্পগুলােকে প্রাণবন্ত করে তুলেছেন। এ কারণে প্রতিটি গল্পই হয়ে উঠেছে সুখপাঠের এক বিশাল আধার। এ বইতে পাঠকসমাজ নতুন এক আরিফ আজাদকে আবিষ্কার করবেন বলেই আমাদের বিশ্বাস। পাঠকদের জ্ঞাতার্থে বলতে হচ্ছে, লেখক নিজস্ব বানান ও ভাষারীতি অনুসরণ করে থাকেন। ফলে বহুল ব্যবহৃত কিছু শব্দের অচেনা রূপ দেখে তারা বিভ্রান্ত হবেন না—এই কামনা। আল্লাহ আমাদের সবাইকে সত্য আর সুন্দরের পথে অবিচল রাখুন। আমিন।
jibon jekhane jemon,jibon jekhane jemon in boiferry,jibon jekhane jemon buy online,jibon jekhane jemon by Arif Azad,জীবন যেখানে যেমন,জীবন যেখানে যেমন বইফেরীতে,জীবন যেখানে যেমন অনলাইনে কিনুন,আরিফ আজাদ এর জীবন যেখানে যেমন,9789849548997,jibon jekhane jemon Ebook,jibon jekhane jemon Ebook in BD,jibon jekhane jemon Ebook in Dhaka,jibon jekhane jemon Ebook in Bangladesh,jibon jekhane jemon Ebook in boiferry,জীবন যেখানে যেমন ইবুক,জীবন যেখানে যেমন ইবুক বিডি,জীবন যেখানে যেমন ইবুক ঢাকায়,জীবন যেখানে যেমন ইবুক বাংলাদেশে
আরিফ আজাদ এর জীবন যেখানে যেমন এখন পাচ্ছেন বইফেরীতে মাত্র 193 টাকায়। এছাড়া বইটির ইবুক ভার্শন পড়তে পারবেন বইফেরীতে। jibon jekhane jemon by Arif Azadis now available in boiferry for only 193 TK. You can also read the e-book version of this book in boiferry.
ধরন পেপারব্যাক | ১৫২ পাতা
প্রথম প্রকাশ 2021-02-01
প্রকাশনী সমকালীন প্রকাশন
ISBN: 9789849548997
ভাষা বাংলা

ক্রেতার পর্যালোচনা

5
1 reviews

1-5 থেকে 8 পর্যালোচনা

  • পর্যালোচনা লিখেছেন 'Mijun Uddin Masud'
    প্রত্যেক মানুষের নিজস্ব কাহিনী থাকে। কিছু লোকের গল্প খুব আকর্ষণীয় এবং উত্তেজনাপূর্ণ। কিছু গল্পের মধ্যে আরও দুঃখ এবং বেদনা থাকে, আবার কোনওটিতে প্রেম এবং সুখ থাকে। কিছু জীবন খুব চ্যালেঞ্জিং হয়। কিছু গল্প সম্পূর্ণ আলাদা – সবচেয়ে আলাদা, অনন্য, অনন্য। প্রায়শই একই রকম গল্প বছরের পর বছর ধরে মানুষের মনে থেকে যায়। দুর্দান্ত ব্যক্তিত্বের গল্প, মানুষকে অনুপ্রেরণা জাগানো গল্প এবং আশ্চর্যজনক ঘটনায় পরিপূর্ণ গল্প ইতিহাসের পাতায় লিপিবদ্ধ রয়েছে। চিত্র এটিও সত্য যে অনেকের গল্পের সাথে মেলে। এই গল্পগুলিতে অনেক মিল থাকতে পারে। একনজরে কয়েকটি শিরোনাম দেখা যাক _____ ★স্বার্থপরতার এই দুনিয়ায় কিছু মানুষ আছে,যারা জীবনের গোলকধাঁধায় ভরকে যায় না, হারিয়ে যায় না!যারা অনুপম আদর্শকে বুকে ধারণ করে তার জন্য জীবনের সবটুকু সুখ,সবটুকু আহ্লাদ ছেড়ে দিতে পারে।গন্তব্যের পথকে মসৃণ রাখতে ত্যাগ করতে হবে দুনিয়ার সকল মোহ""___সফলতা সমাচার। ★বিপদের দিনে মানুষকে আশার আলো দেখাতে হয়।যেখানে অন্ধকার ব্যতিত আলোর নিশানাও নেই, সেখানেও আলোর উপস্থিতি কল্পনা করে নিতে হয় আমাদের। মানুষ আশা করতে পারে বলেই এতো বিচিত্র বিপদেও সভ্যতার পর সভ্যতা টিকে আছে। কচুপাতার ওপর জমে থাকা শিশিরবিন্দুর মতোই ঠুনকো মানুষের জীবন।হালকা বাতাসে পাতা দুলালেই গড়িয়ে পড়ে নিঃশেষ হয়ে যায়____একটি বৃষ্টিভেজা সন্ধ্যা ★বুর্জুকি কথাবার্তা শুনতে ভালোই লাগে। রিজিকের বন্দোবস্ত না কইরা যদি খালি কথাতেই পেট ভইরতো, তাই তো ভালোই আছিলো। উত্তরে তিনি বললেন __মিয়া ভাই,যে রিজিক আসমান থেইকা আসে, তার লাগি এতো পেরেশানি কিয়ের?_______আসমানের আয়োজন। [,মাশাআল্লাহ 💖💖] __""জীবন যেখানে যেমন বইটিতে ১৪ টা গল্প রয়েছে। গল্পগুলোকে চমৎকার ভাবে লিখেছেন।বইটি বাস্তব জীবনের সাথে সম্পৃক্ত এ যেনো শিহরন জাগানো মনোমুগ্ধকর গল্প।প্রতিটি গল্পে রয়েছে অনুপ্রেরনা ও শিক্ষা।"জীবন যেখানে যেমন "" বইটি ইসলামি জীবনাচারের ব্যাপারে শ্রদ্ধাশীল ও আগ্রহ করে তুলবে। ইংশাআল্লাহ 🥰
    June 30, 2022
  • পর্যালোচনা লিখেছেন 'Mijun Uddin Masud'
    #বইফেরীবুকরিভিউ_প্রতিযোগিতা জীবন যেখানে যেমন © আরিফ আজাদ ভাইয়া 🫂 -🖤 প্রত্যেক মানুষের নিজস্ব কাহিনী থাকে। কিছু লোকের গল্প খুব আকর্ষণীয় এবং উত্তেজনাপূর্ণ। কিছু গল্পের মধ্যে আরও দুঃখ এবং বেদনা থাকে, আবার কোনওটিতে প্রেম এবং সুখ থাকে। কিছু জীবন খুব চ্যালেঞ্জিং হয়। কিছু গল্প সম্পূর্ণ আলাদা – সবচেয়ে আলাদা, অনন্য, অনন্য। প্রায়শই একই রকম গল্প বছরের পর বছর ধরে মানুষের মনে থেকে যায়। দুর্দান্ত ব্যক্তিত্বের গল্প, মানুষকে অনুপ্রেরণা জাগানো গল্প এবং আশ্চর্যজনক ঘটনায় পরিপূর্ণ গল্প ইতিহাসের পাতায় লিপিবদ্ধ রয়েছে। চিত্র এটিও সত্য যে অনেকের গল্পের সাথে মেলে। এই গল্পগুলিতে অনেক মিল থাকতে পারে। একনজরে কয়েকটি শিরোনাম দেখা যাক _____ ★স্বার্থপরতার এই দুনিয়ায় কিছু মানুষ আছে,যারা জীবনের গোলকধাঁধায় ভরকে যায় না, হারিয়ে যায় না!যারা অনুপম আদর্শকে বুকে ধারণ করে তার জন্য জীবনের সবটুকু সুখ,সবটুকু আহ্লাদ ছেড়ে দিতে পারে।গন্তব্যের পথকে মসৃণ রাখতে ত্যাগ করতে হবে দুনিয়ার সকল মোহ""___সফলতা সমাচার। ★বিপদের দিনে মানুষকে আশার আলো দেখাতে হয়।যেখানে অন্ধকার ব্যতিত আলোর নিশানাও নেই, সেখানেও আলোর উপস্থিতি কল্পনা করে নিতে হয় আমাদের। মানুষ আশা করতে পারে বলেই এতো বিচিত্র বিপদেও সভ্যতার পর সভ্যতা টিকে আছে। কচুপাতার ওপর জমে থাকা শিশিরবিন্দুর মতোই ঠুনকো মানুষের জীবন।হালকা বাতাসে পাতা দুলালেই গড়িয়ে পড়ে নিঃশেষ হয়ে যায়____একটি বৃষ্টিভেজা সন্ধ্যা ★বুর্জুকি কথাবার্তা শুনতে ভালোই লাগে। রিজিকের বন্দোবস্ত না কইরা যদি খালি কথাতেই পেট ভইরতো, তাই তো ভালোই আছিলো। উত্তরে তিনি বললেন __মিয়া ভাই,যে রিজিক আসমান থেইকা আসে, তার লাগি এতো পেরেশানি কিয়ের?_______আসমানের আয়োজন। [,মাশাআল্লাহ 💖💖] __""জীবন যেখানে যেমন বইটিতে ১৪ টা গল্প রয়েছে। গল্পগুলোকে চমৎকার ভাবে লিখেছেন।বইটি বাস্তব জীবনের সাথে সম্পৃক্ত এ যেনো শিহরন জাগানো মনোমুগ্ধকর গল্প।প্রতিটি গল্পে রয়েছে অনুপ্রেরনা ও শিক্ষা।"জীবন যেখানে যেমন "" বইটি ইসলামি জীবনাচারের ব্যাপারে শ্রদ্ধাশীল ও আগ্রহ করে তুলবে। ইংশাআল্লাহ 🥰
    March 28, 2023
  • পর্যালোচনা লিখেছেন 'Mijun Uddin Masud'
    #বইফেরীবুকরিভিউ_প্রতিযোগিতা জীবন যেখানে যেমন © আরিফ আজাদ ভাইয়া 🫂 -🖤 প্রত্যেক মানুষের নিজস্ব কাহিনী থাকে। কিছু লোকের গল্প খুব আকর্ষণীয় এবং উত্তেজনাপূর্ণ। কিছু গল্পের মধ্যে আরও দুঃখ এবং বেদনা থাকে, আবার কোনওটিতে প্রেম এবং সুখ থাকে। কিছু জীবন খুব চ্যালেঞ্জিং হয়। কিছু গল্প সম্পূর্ণ আলাদা – সবচেয়ে আলাদা, অনন্য, অনন্য। প্রায়শই একই রকম গল্প বছরের পর বছর ধরে মানুষের মনে থেকে যায়। দুর্দান্ত ব্যক্তিত্বের গল্প, মানুষকে অনুপ্রেরণা জাগানো গল্প এবং আশ্চর্যজনক ঘটনায় পরিপূর্ণ গল্প ইতিহাসের পাতায় লিপিবদ্ধ রয়েছে। চিত্র এটিও সত্য যে অনেকের গল্পের সাথে মেলে। এই গল্পগুলিতে অনেক মিল থাকতে পারে। একনজরে কয়েকটি শিরোনাম দেখা যাক _____ ★স্বার্থপরতার এই দুনিয়ায় কিছু মানুষ আছে,যারা জীবনের গোলকধাঁধায় ভরকে যায় না, হারিয়ে যায় না!যারা অনুপম আদর্শকে বুকে ধারণ করে তার জন্য জীবনের সবটুকু সুখ,সবটুকু আহ্লাদ ছেড়ে দিতে পারে।গন্তব্যের পথকে মসৃণ রাখতে ত্যাগ করতে হবে দুনিয়ার সকল মোহ""___সফলতা সমাচার। ★বিপদের দিনে মানুষকে আশার আলো দেখাতে হয়।যেখানে অন্ধকার ব্যতিত আলোর নিশানাও নেই, সেখানেও আলোর উপস্থিতি কল্পনা করে নিতে হয় আমাদের। মানুষ আশা করতে পারে বলেই এতো বিচিত্র বিপদেও সভ্যতার পর সভ্যতা টিকে আছে। কচুপাতার ওপর জমে থাকা শিশিরবিন্দুর মতোই ঠুনকো মানুষের জীবন।হালকা বাতাসে পাতা দুলালেই গড়িয়ে পড়ে নিঃশেষ হয়ে যায়____একটি বৃষ্টিভেজা সন্ধ্যা ★বুর্জুকি কথাবার্তা শুনতে ভালোই লাগে। রিজিকের বন্দোবস্ত না কইরা যদি খালি কথাতেই পেট ভইরতো, তাই তো ভালোই আছিলো। উত্তরে তিনি বললেন __মিয়া ভাই,যে রিজিক আসমান থেইকা আসে, তার লাগি এতো পেরেশানি কিয়ের?_______আসমানের আয়োজন। [,মাশাআল্লাহ 💖💖] __""জীবন যেখানে যেমন বইটিতে ১৪ টা গল্প রয়েছে। গল্পগুলোকে চমৎকার ভাবে লিখেছেন।বইটি বাস্তব জীবনের সাথে সম্পৃক্ত এ যেনো শিহরন জাগানো মনোমুগ্ধকর গল্প।প্রতিটি গল্পে রয়েছে অনুপ্রেরনা ও শিক্ষা।"জীবন যেখানে যেমন "" বইটি ইসলামি জীবনাচারের ব্যাপারে শ্রদ্ধাশীল ও আগ্রহ করে তুলবে। ইংশাআল্লাহ 🥰
    March 28, 2023
  • পর্যালোচনা লিখেছেন 'Firoza Ayat'
    জীবন মানেই গল্প আর গল্প মানেই জীবনের আবহ।জীবন মানেই ছোট বড় কিছু স্মৃতি মাখা গল্পের মিলেশ।প্রতিদিনের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সুখময় ও দুঃখময় ঘটনা গুলোই এক সময় হয়ে উঠে জীবনের গল্প। আরিফ আজাদ স্যারের বই পড়া মানেই অন্য রকম একটা অনুভূতি কাজ করে।অনুভূতিরা যেন ভেতর থেকে ছন্দিত হয়।কখনো কখনো অদ্ভুত কাঁপুনিতে ভেতরে দোলা দিয়ে আঘাত হানে হৃদয়ের দরজায়।আবার কখনো কখনো একরাশ মুগ্ধতায় বিমোহিত করে দেয় মন প্রান। বরাবরই আমার আরিফ আজাদ স্যারের বইয়ের ফ্লপের লেখা টা সবথেকে প্রিয়। তাই প্রথমেই চোখ বুলিয়েই নিয়েছিলাম জীবন যেখানে যেমন বইয়ের ফ্লপের পাতায়। বইটির প্রচ্ছদ এতোটাই চিত্তাকর্ষক ও দিলকাশ, যা পবিত্রতার দোলা দিয়ে যায় মনের নীল আকাশে। হালকা আবছায়ায় গাড় সবুজ রঙের প্রচ্ছদটি দেখেই মনের আরশিতে ভেসে উঠে অনেক কিছু। অনুভূতিরা জড়োসড়ো হয়ে আসে।সবুজ রং আসার প্রতীক,নতুন জীবনের প্রতীক ও শক্তি। সবুজ মানে শান্তির রং।নতুন আশা, সম্পূর্ণ নতুন এক জীবনের আশায় ব্যাকুল হয়ে ডুব দিলাম ভেতরে…… উৎসর্গের পাতায় এসে চোখ আটকে যায়, লেখাটি উপরে না লিখে পাতার একদম নিচে লেখার কি কারণ জানিনা।তবে আরিফ আজাদ স্যারের এভাবে মানুষের কৃতজ্ঞতার বহিঃপ্রকাশ নতুন করে ভাবালো। রব্বে কারীম কবুল করুক মেহেদি হাসান ভাইয়াকে কবুল করুক সেই দোয়া। সমকালীন প্রকাশনের অনুভূতিতে বলা হয়েছে, আরিফ আজাদ একজন আলোর ফেরিওয়ালা। হ্যাঁ তিনি আলো নিয়ে এসেছেন, আলোর মশাল নিয়ে এসেছেন। আপনার জন্য, আমার জন্য , আমাদের জন্য, আমাদের সকলের জীবন দর্শনের জন্য। লেখকের অনুভূতি পড়তে গিয়ে একগাল হেঁসে ছিলাম। মুহুর্তেই মনের আকাশে ভীড় করে বসে ছোট বেলার সেই সোনালি দিনের গল্প।আমি ও ভীষণ গল্প পাগল।যেখানেই গল্পের আসর জমেছে একদম মজে গেছি। হারিয়ে গেছি নতুন জগতে। এটা ভেবে আনন্দ লাগছিলো যাহোক আরিফ আজাদ স্যারও যে আমাদের মতো রাক্ষস - খোক্কসের গল্প, জ্বীন ভুতের গল্প শুনেছে। ছোট বেলায় শোনা আরেকটি বিশেষ ধরনের গল্প শুনতাম শাসতোর বলা হতো যেটাকে। প্রকাশের অনুভূতি টুকু পড়ে বুঝলাম ইসলামি জীবনের সকল অনুষঙ্গ বিষয় নিয়ে রচিত হয়েছে জীবন যেখানে জীবন। চলুন নতুন এক জীবনের আশায় প্রবেশ করি গভীরে ------- সূচি পত্র দেখে কোনটার আগে কোন টা পড়বো এই নিয়ে দোটানায় পড়ে গেলাম, যাহোক ধারাবাহিকতায় রক্ষা করলাম ------- অশ্রু ধরার দিনে- ঘড়ির কাঁটায় রাত্রি সাড়ে তিনটা টুপটুপ করে আমার চোখের অশ্রু ঝড়ে পড়ছে। কি ধৈর্য্য! ইয়া রব কতটা ধৈর্য্য একজন মায়ের হতে পারে! কতটা? পরক্ষণেই আমি ও নিজের অজান্তেই আওড়িয়ে ফেললাম, আমিও বিশ্বাস করি মিনুর সন্তান মিনুকে ছেড়ে কোথাও যায়নি।তাদের আবার দেখা, জান্নাতে সেই প্রশংসিত বাড়িতে, সবুজ নহরের সেই বিশাল বিরান ভূমিতে, সবুজ পাখিদের মিলেশে, সবুজ দূর্বাঘাসের ওপর শিশির আচ্ছাদিত পথে হাঁটবে মিনু আর তার মানিক। অবশ্যই হাঁটবে ইন শা আল্লাহ। [প্রকাশ থাকে কুসংস্কারের ৮০ ভাগ হয়তো এদেশের গ্রামে রয়েছে তার ই উপলব্ধি হয়েছে। আরো একটি বিষয় আমাদের প্রিয়জনদের হারানোর বেদনায় আমরা শোকে কাতর হয়ে যাই। কান্নার আহাজারিতে আকাশ ভারি করে তুুলি। কিন্তু আমাদের এই কান্না মৃত্যু ব্যক্তির রুহের জন্য যেন কষ্টদায়ক না হয় সেদিকে খেয়াল রেখে আমাদের কান্না টা যেন শুধু জায়নামাজেই হয়। ] এই প্রেম, ভালোবাসা- এতোটুকুই মনের ক্ষুদ্রানুভুতি বেঁচে থাকুক ভালোবাসা। বেঁচে থাকুক রেবেকারা। পবিত্র ভালোবাসা কতটা সচ্ছ,কতটা শীতল, কতটা সুন্দর তার ই বহিঃপ্রকাশ এই এই প্রেম ভালোবাসা। আসমানের আয়োজন- একটু একটু করে পড়ছি আর শিহরিত হচ্ছি।কৃতজ্ঞতা ছমিরুদ্দিন চাচার প্রতি। দুনিয়ার মোহের জীবনে ক'জন ই বা পারে তার মতো এই রকম আসমানের আয়োজন করতে। চাওয়া না চাওয়া - সমাজের একটা নির্মম হাহাকার উঠে এসেছে এই গল্পে যেন।এখনো এদেশের অনেক পরিবারে কন্যা সন্তান যেন অভিশাপ।আরো একটা কুসংস্কার প্রচলিত আছে কন্যা সন্তান না হলে বংশ রক্ষা হবে না। মেয়ে সন্তান হলেই শুরু হয়ে যায় তর্জন গর্জন। দোয়া করি মানুষের সুবোধ হোক। এক বৃষ্টিভেজা সন্ধা- আহা মৃত্যুর কোনো বয়স নেই, নেই মৃত্যুর অভিধানে অপেক্ষার মতো কোনো শব্দ। সত্যি সত্যিই মাঝে মাঝে আমারো মৃত্যুকে ভারি আশ্চর্য লাগে।বৃষ্টিভেজা সন্ধায় ফাতিমার সাথে সাথে আমার চোখেও বর্ষন হয়েছিল শ্রাবণের বারিধারা।জানিনা এমন পরিস্থিতিতে পড়লে কি অবস্থা হবে। এভাবেই বলা হয়েছে কখনো জীবনের রকমফেরের গল্প, কখনো বিশ্বাসীদের গল্প। কখনো বলা হয়েছে জীবনের কাঙ্ক্ষিত সুখের গল্প। কখনো বা বলা হয়েছে বাবাদের গল্প।বলা হয়েছে কখনো হিজল বনের গানের গল্প। টু-লেট কিংবা আমাদের মায়েদের মহীয়সী নারী হওয়ার গল্প। শেষ হয়েছে সফলতার সমাচার দিয়ে। পুরোটা পাঠের সময় আনন্দ,বেদনার মাখামাখির ছন্দ বদল হয়েছে।কখনো কখনো বিষণ্নতায় ছেয়ে গেছে মন আবারও কখনো কখনো পুলকিত হয়ে উঠে মন। বইটির প্রচ্ছদের সাথে ১৪ টি গল্পের এক নিবিড় যোগাসূত্র রয়েছে।প্রতিটা গল্প নতুন জীবনের আশায় নতুন রঙে সবুজের মাখামাখিতে নতুন শক্তি পেলাম। আরিফ আজাদ সম্পর্কে নতুন করে বলার কিছু নেই।তার সুনিপুণ বর্ননাশৈলী, শব্দের চয়ন কিংবা গল্প কথন বরাবরই মুগ্ধ করে। রব্বে কারীমের কাছে একটাই প্রার্থনা করি তার এই সত্যের পেছনে নিরন্তর গতিময়তা অব্যহত থাকুক। সবথেকে ভালো লাগার মতো একটা বিষয়। এই বইটিতে রেবেকা নামক এক অতুলনীয় নারী চরিত্রকে অনন্য করে তোলা হয়েছে। ইন শা আল্লাহ প্রত্যাশা রাখি সাজিদের ন্যায় যুবতীরা একদিন রবেকা হতে চাইবে ---------- বক্ষমান বইটিকে নিরেট গল্পের বই বললে ভুল হবে।আজকের জেনারেশনে সাহিত্য মানে অশ্লীল শব্দ চয়ন আর নোংরা আলাপন।কিন্তু গল্প যে জীবনের কথা বলে, যে গল্প মানুষকে উজ্জীবিত করে সে গল্প জীবনের গল্প।সে গল্প রেবেকাদের গল্প, সে গল্প জমিরউদ্দীনের গল্প,সে গল্প আলাদিনের গল্প।বইটি পাঠে হাসি-কান্নার মিলেশে জীবনের কিছু উপকারী পাঠ কুড়িয়ে নিতে সক্ষম হলাম। আলহামদুলিল্লাহ সুম্মা আলহামদুলিল্লাহ। গল্পের আড়ালে প্রতিটি গল্প আমাদের জন্য কিছু মেসেজ দিয়ে গেছে। প্রতিটি গল্প থেকেই কিছু না কিছু শিক্ষনীয় বিষয় রয়েছে। তবুও কিছু গল্পের নাম আমি একটু আলাদা করে বলতে চাচ্ছি - বইটির সেরা শিক্ষনীয় গল্পঃ ————————————–— অশ্রু ঝরার দিন আসমানের আয়োজন। এক বৃষ্টিভেজা সন্ধা। সবথেকে ভালো লাগা গল্পঃ __________________________ সফলতা সমাচার। সেরা অনুভূতি মাখা গল্পঃ __________________________ সুখ। বোধ। ভালো লাগার প্রিয় কিছু লাইনঃ ______________________________ মেয়েরা বোধকরি অন্য ধাতুতে গড়া।একেবারে অপরিচিত একটা মানুষ, একটা পরিবার, একটা পরিবেশকে তারা কতো নিবিড়ভাবে আপন করে নেয়!কতো সুন্দর করে তাতে একে দেয় ভালোবাসার আল্পনা। জীবনে বাচঁবার যন্ত্রণা মৃত্যুযন্ত্রণার চাইতেও মাঝে মাঝে প্রবল হয়ে উঠে। মহাসমুদ্রের বুকে মহাদুর্যোগের সময় যে ঝড় উঠে, সেই ঝড়ও মায়ের বুকের ঝড়ের কাছে নস্যি! মৃত্যু মানেই হলো নিশ্চিত প্রস্থান। আহা মৃত্যু! আহারে মানুষ!কচুপাতার ওপর জমে থাকা শিশিরবিন্দুর মতোই ঠুনকো মানুষের জীবন। হালকা বাতাসে পাতা দুললেই গড়িয়ে পড়ে নিঃশেষ হয়ে যায়। বিপদগ্রস্ত মানুষের কাছে নিজের বিপদ ব্যতীত বাকি দুনিয়াটাই গৌণ। একজন মা তার সন্তানের জন্য যে ব্যাকুলতা নিয়ে অপেক্ষা করে, একজন বাবার ব্যাকুলতা তার হাজার ভাগের এক ভাগও হবে না। জীবন এক কঠিন বাস্তবতার নাম;এমন এক শিকলের নাম,যার বাঁধন থেকে মৃত্যু ব্যতীত কারও নিস্তার নেই। স্বার্থপরতার এই দুনিয়ায় এমন মানুষ এখনও আছে, যারা জীবনের গোলকধাঁধায় ভড়কে যায় না। বই পাঠ সেরা অনুপ্রেরণাঃ ________________________ বিশাল কিছু পাবার আশায় ক্ষুদ্র কিছু ত্যাগ করার নামই হলো অপরচুনিটি কস্ট। বইটি সম্পর্কে আরও অনেক কিছু বলা যেতো, কিন্তু গতানুগতিক বুক রিভিউ আকারে একে লিখিনি,ভালোলাগার ক্ষুদ্র অনুভূতিটুকু মেলে ধরেছি মাত্র। ----------------------------------------------------- বই:জীবন যেখানে যেমন৷ লেখক:আরিফ আজাদ প্রকাশক:সমকালীন প্রকাশন মুদ্রিত মূল্য:২৩৭ টাকা। প্রথম প্রকাশ:একুশে বইমেলা ২০২১
    June 28, 2022
  • পর্যালোচনা লিখেছেন 'Halima Akter'
    জীবন মানেই গল্প আর গল্প মানেই জীবনের আবহ।জীবন মানেই ছোট বড় কিছু স্মৃতি মাখা গল্পের মিলেশ।প্রতিদিনের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সুখময় ও দুঃখময় ঘটনা গুলোই এক সময় হয়ে উঠে জীবনের গল্প। বরাবরই আমার আরিফ আজাদ স্যারের বইয়ের ফ্লপের লেখা টা সবথেকে প্রিয়। তাই প্রথমেই চোখ বুলিয়েই নিয়েছিলাম জীবন যেখানে যেমন বইয়ের ফ্লপের পাতায়। বইটির প্রচ্ছদ এতোটাই চিত্তাকর্ষক ও দিলকাশ, যা পবিত্রতার দোলা দিয়ে যায় মনের নীল আকাশে। উৎসর্গের পাতায় এসে চোখ আটকে যায়, লেখাটি উপরে না লিখে পাতার একদম নিচে লেখার কি কারণ জানিনা।তবে আরিফ আজাদ স্যারের এভাবে মানুষের কৃতজ্ঞতার বহিঃপ্রকাশ নতুন করে ভাবালো। রব্বে কারীম কবুল করুক মেহেদি হাসান ভাইয়াকে কবুল করুক সেই দোয়া। অশ্রু ধরার দিনে- ঘড়ির কাঁটায় রাত্রি সাড়ে তিনটা টুপটুপ করে আমার চোখের অশ্রু ঝড়ে পড়ছে। কি ধৈর্য্য! ইয়া রব কতটা ধৈর্য্য একজন মায়ের হতে পারে! কতটা? পরক্ষণেই আমি ও নিজের অজান্তেই আওড়িয়ে ফেললাম, আমিও বিশ্বাস করি মিনুর সন্তান মিনুকে ছেড়ে কোথাও যায়নি। এই প্রেম, ভালোবাসা- এতোটুকুই মনের ক্ষুদ্রানুভুতি বেঁচে থাকুক ভালোবাসা। বেঁচে থাকুক রেবেকারা। পবিত্র ভালোবাসা কতটা সচ্ছ,কতটা শীতল, কতটা সুন্দর তার ই বহিঃপ্রকাশ এই এই প্রেম ভালোবাসা। আসমানের আয়োজন- একটু একটু করে পড়ছি আর শিহরিত হচ্ছি।কৃতজ্ঞতা ছমিরুদ্দিন চাচার প্রতি। দুনিয়ার মোহের জীবনে ক'জন ই বা পারে তার মতো এই রকম আসমানের আয়োজন করতে। চাওয়া না চাওয়া - সমাজের একটা নির্মম হাহাকার উঠে এসেছে এই গল্পে যেন।এখনো এদেশের অনেক পরিবারে কন্যা সন্তান যেন অভিশাপ।আরো একটা কুসংস্কার প্রচলিত আছে কন্যা সন্তান না হলে বংশ রক্ষা হবে না। মেয়ে সন্তান হলেই শুরু হয়ে যায় তর্জন গর্জন। দোয়া করি মানুষের সুবোধ হোক। ভালো লাগার প্রিয় কিছু লাইনঃ মেয়েরা বোধকরি অন্য ধাতুতে গড়া।একেবারে অপরিচিত একটা মানুষ, একটা পরিবার, একটা পরিবেশকে তারা কতো নিবিড়ভাবে আপন করে নেয়!কতো সুন্দর করে তাতে একে দেয় ভালোবাসার আল্পনা। জীবনে বাচঁবার যন্ত্রণা মৃত্যুযন্ত্রণার চাইতেও মাঝে মাঝে প্রবল হয়ে উঠে। মহাসমুদ্রের বুকে মহাদুর্যোগের সময় যে ঝড় উঠে, সেই ঝড়ও মায়ের বুকের ঝড়ের কাছে নস্যি! মৃত্যু মানেই হলো নিশ্চিত প্রস্থান। আহা মৃত্যু! আহারে মানুষ!কচুপাতার ওপর জমে থাকা শিশিরবিন্দুর মতোই ঠুনকো মানুষের জীবন। হালকা বাতাসে পাতা দুললেই গড়িয়ে পড়ে নিঃশেষ হয়ে যায়। বই পাঠ সেরা অনুপ্রেরণাঃ বিশাল কিছু পাবার আশায় ক্ষুদ্র কিছু ত্যাগ করার নামই হলো অপরচুনিটি কস্ট।বইটি সম্পর্কে আরও অনেক কিছু বলা যেতো, কিন্তু গতানুগতিক বুক রিভিউ আকারে একে লিখিনি,ভালোলাগার ক্ষুদ্র অনুভূতিটুকু মেলে ধরেছি মাত্র।
    March 28, 2023
আরিফ আজাদ
লেখকের জীবনী
আরিফ আজাদ (Arif Azad)

আরিফ আজাদ আরিফ আজাদ একজন জীবন্ত আলোকবর্তিকা- লেখক আরিফ আজাদকে বর্ণনা করতে গিয়ে একথাই বলেছেন ডঃ শামসুল আরেফিন। গার্ডিয়ান প্রকাশনী আরিফ আজাদের পরিচয় দিতে গিয়ে লিখেছে, “তিনি বিশ্বাস নিয়ে লেখেন, অবিশ্বাসের আয়না চূর্ণবিচুর্ণ করেন।” আরিফ আজাদ এর বই মানেই একুশে বইমেলায় বেস্ট সেলার, এতটাই জনপ্রিয় এ লেখক। সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশের সাহিত্য অঙ্গনে সবচেয়ে আলোড়ন তোলা লেখকদের একজন আরিফ আজাদ। ১৯৯০ সালের ৭ই জানুয়ারি চট্টগ্রামে জন্ম নেয়া এ লেখক মাধ্যমিক শিক্ষাজীবন শেষ করে চট্টগ্রাম জিলা স্কুলে। একটি সরকারি কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন এবং সেখানে উচ্চশিক্ষা সম্পন্ন করেন। লেখালেখির ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই আরিফ আজাদ এর বই সমূহ পাঠক মহলে ব্যাপক সাড়া ফেলে। তার প্রথম বই ‘প্যারাডক্সিক্যাল সাজিদ’ ২০১৭ সালের একুশে বইমেলায় প্রকাশ পায়। বইটির কেন্দ্রীয় চরিত্র সাজিদ বিভিন্ন কথোপকথনের মধ্যে তার নাস্তিক বন্ধুর অবিশ্বাসকে বিজ্ঞানসম্মত নানা যুক্তিতর্কের মাধ্যমে খণ্ডন করে। আর এসব কথোপকথনের মধ্য দিয়েই বইটিতে অবিশ্বাসীদের অনেক যুক্তি খণ্ডন করেছেন লেখক। বইটি প্রকাশের পরপরই তুমুল জনপ্রিয়তা পায়। এটি ইংরেজি ও অসমীয়া ভাষায় অনূদিতও হয়েছে। ২০১৯ সালের একুশে বইমেলায় ‘প্যারাডক্সিক্যাল সাজিদ - ২’ প্রকাশিত হয়ে এবং এটিও বেস্টসেলারে পরিণত হয়। সাজিদ সিরিজ ছাড়াও আরিফ আজাদ এর বই সমগ্রতে আছে ‘আরজ আলী সমীপে’ এবং ‘সত্যকথন’ (সহলেখক) এর মতো তুমুল জনপ্রিয় বই।

সংশ্লিষ্ট বই